শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ সার্কুলার

আসসালামু আলাইকুম, সুপ্রিয় শিক্ষার্থীরা! তোমাকে স্বাগত জানাচ্ছি শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ এর নতুন একটি আপডেট ব্লগে।

আপনারা নিশ্চয়ই জেনে থাকবেন যে বাংলাদেশের বাণিজ্যিক ব্যাংক ও অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো প্রতিবছর গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করে থাকে।

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় বাণিজ্যিক ব্যাংক। এই ব্যাংকটি প্রতিবছর এইচএসসি ও স্নাতক পর্যায়ে অধ্যয়নরত ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করে থাকে।

প্রতিবারের ন্যায় এবারও এইচএসসি শিক্ষার্থীদের বৃত্তির সার্কুলার প্রকাশিত হয়েছে। যারা ২০২২ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে উত্তীর্ণ হয়েছে তারাই কেবল আবেদন করতে পারবে।

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩

আজকের ব্লগে আমরা শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি সম্পর্কিত খুঁটিনাটি তথ্য জানবো। কিভাবে আবেদন করবেন, আবেদন ফরম কোথায় পাবেন তার বিস্তারিত জানবো।

তো চলুন আর কথা না বাড়িয়ে মূল আলোচনা শুরু করা যাক।

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ সার্কুলার

সবার আগে শিক্ষাবৃত্তির এই সার্কুলার সম্পর্কে কিছু মৌলিক তথ্য জেনে নিব।

এক নজরে সম্পূর্ণ সার্কুলার
আবেদনের শেষ তারিখ:৩০ আগস্ট, ২০২৩
বৃত্তির স্তর:ডিগ্রি ও স্নাতক (সম্মান)
বৃত্তির মেয়াদকাল:৩ ও ৪ বছর
এককালীন বৃত্তির পরিমান:২২,০০০ টাকা
মাসিক বৃত্তির পরিমান:২,৫০০ টাকা
বৃত্তির ফল প্রকাশউল্লেখ নেই

উপরের সংক্ষিপ্ত তথ্য থেকে আগ্রহী শিক্ষার্থীরা সহজেই সার্কুলার সম্পর্কে ধারণা পাবে। আর এ সম্পর্কে বিশদ জানতে সম্পূর্ণ ব্লগটি পড়তে হবে।

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ সার্কুলার

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি পাওয়ার যোগ্যতা

উপরে উল্লিখিত সার্কুলার থেকে জানা যাচ্ছে যে এই বৃত্তির জন্য শুধু ২০২২ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ছাত্র-ছাত্রীরা আবেদন করতে পারবে।

এছাড়াও আবেদনের ক্ষেত্রে আরও কিছু শর্তাবলি রয়েছে। সেগুলো হলো:

  • অন্যকোনো বেসরকারি উৎস থেকে বৃত্তি প্রাপ্তরা আবেদন করতে পারবে না।
  • পিতা-মাতা বা অভিভাবকের বার্ষিক আয় ১,৫০,০০০ টাকার বেশি হতে পারবে না।
  • বিভাগীয় শহর বা সিটি করপোরেশন এলাকার শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ন্যূনতম জিপিএ ৫.০০ এবং অন্য বিভাগ থেকে ন্যূনতম জিপিএ ৪.৮০ পেতে হবে।
  • সিটি করপোরেশন এলাকার বাইরের শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ন্যূনতম জিপিএ ৪.৮০ এবং অন্য বিভাগ থেকে ন্যূনতম জিপিএ ৪.৫০ পেতে হবে।

উপরের এসব শর্তাবলি যেসকল শিক্ষার্থীর সাথে সামঞ্জস্য কেবল তারাই শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবে।

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তির আবেদন

অন্যান্য বৃত্তি মতো এটির জন্য অনলাইনে আবেদন করার সুযোগ নেই। একটি আবেদন ফরম নিজ হাতে কলম দিয়ে পূরণ করে সাথে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সংযুক্ত করে জমা দিতে হবে।

নিচের অংশে আমরা শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তির আবেদন প্রক্রিয়া সম্পর্কে জানবো। কী কী কাগজপত্র প্রয়োজন হবে, কোথায় আবেদনপত্র জমা দিতে হবে সব জানবো।

ধাপ-১: আবেদন ফরম পূরণ

সর্বপ্রথমে বৃত্তির জন্য একটি নির্ধারিত আবেদন ফরম সংগ্রহ করতে হবে। দুইটি উপায়ে এই আবেদন ফরম পেতে পারেন: ইন্টারনেট ও ব্যাংকের নিকটস্থ শাখা থেকে।

ইন্টারনেট থেকে কিভাবে আবেদন ফরম PDF পাবেন সে সম্পর্কে কিছুক্ষন পরে জানবো।

আবেদন ফরমটি সংগ্রহ করা হয়ে গেলে সেটি আবেদনকারী শিক্ষার্থী নিজে পূরণ করবে। পূরণকৃত সকল তথ্য সঠিক হতে হবে। কোনো তথ্য ভুল প্রমাণিত হলে আবেদনপত্র বাতিল হবে।

ধাপ-২: প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সংযুক্তি

আবেদন ফরমটি যথাযথভাবে পূরণ করা হয়ে গেলে সেটি জমা দেওয়ার আগে কিছু আবশ্যক কাগজপত্র সংযুক্ত করতে হবে।

SJIBL শিক্ষাবৃত্তির জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিম্নরূপ:

  • আবেদনকারী শিক্ষার্থীর ৩ কপি ও পিতা/মাতা/অভিভাবকের ১ কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি
  • আবেদনকারীর জন্ম নিবন্ধন সনদ অথবা জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি
  • মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার গ্রেডশিটের সত্যায়িত ফটোকপি
  • প্রতিষ্ঠান প্রধান কর্তৃক মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার প্রশংসাপত্রের সত্যায়িত ফটোকপি
  • বর্তমানে অধ্যয়নরত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের আইডি কার্ড বা ভর্তি রশিদের সত্যায়িত ফটোকপি, অথবা প্রতিষ্ঠান প্রধান কর্তৃক প্রত্যয়নপত্র
  • শিক্ষার্থীর পিতা/মাতা অথবা বৈধ অভিভাবকের আয়ের সনদ অথবা গেজেটেড কর্মকর্তা দ্বারা প্রত্যয়নপত্র

এসব ডকুমেন্টস আবেদন ফরমের সাথে স্ট্যাপলার দিয়ে জুড়ে দিতে হবে এবং এগুলো একটি ফাইলে দিতে হবে।

ধাপ-৩: আবেদনপত্র জমাদান

আবেদন ফরম ও সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র কুরিয়ার অথবা ডাকযোগে নির্ধারিত ঠিকানায় পাঠাতে হবে।

অথবা কেউ চাইলে সশরীরে উপস্থিত হয়েও জমা দিতে পারে। আর অবশ্যই ৩০ আগস্ট ২০২৩ তারিখের মধ্যে জমা দিতে হবে। আবেদনপত্র জমা দেওয়ার ঠিকানা:

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড
প্লট: ৪, ব্লক: সিডব্লিউএন (সি)
গুলশান এভিনিউ, গুলশান, ঢাকা-১২১২

দ্রুততম সময়ে আবেদন জমা দিতে সশরীরে উপস্থিত হয়ে জমা দেওয়ার পরামর্শ দিব। অন্যথায় কুরিয়ারের মাধ্যমেও দেওয়া যেতে পারে। তবে ডাকযোগে পাঠালে অনেক দেরি হতে পারে।

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ ফরম PDF

আমরা অনেকেই জানি যে SJIBL শিক্ষাবৃত্তির আবেদন সরাসরি জমা দিতে হয়। অনলাইনে আবেদন দাখিল করার সুযোগ নেই।

এজন্য আমাদেরকে একটি শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তির আবেদন ফরম সংগ্রহ করতে হবে। আগেই বলেছি এটি অনলাইনে ও ব্যাংকের শাখায় পাওয়া যায়।

অনলাইন থেকে সংগ্রহ করতে নিচের বাটনে ক্লিক করুন। তাহলে আবেদন ফরমের PDF পেয়ে যাবেন। পরবর্তীতে সেটি রঙিন প্রিন্ট করে নিজের হাতে পূরণ করতে হবে।

আবেদন ফরমটি চার পৃষ্ঠার। প্রথম দুই পৃষ্ঠা প্রিন্ট করলেই হবে। শেষের দুই পৃষ্ঠায় নীতিমালা ও শর্তাবলি উল্লেখ, সেগুলো প্রিন্ট করার প্রয়োজন নেই।

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তির পরিমাণ

"শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশন" এর শিক্ষাবৃত্তি কর্মসূচির আওতায় ব্যাংকটি প্রতিবছর অনেক মেধাবী শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিয়ে থাকে।

এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে যারা অনার্স অথবা ডিগ্রিতে পড়াশোনা করছে তাদের জন্য মাসিক বৃত্তির পরিমান ২৫০০ টাকা।

ডিগ্রি পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা ৩ বছর পর্যন্ত প্রতিমাসে ২৫০০ টাকা হারে এবং অনার্স পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা ৪ বছর পর্যন্ত প্রতিমাসে ২৫০০ টাকা হারে পেতে থাকবে। এই টাকা সরাসরি তাদের ব্যাংক একাউন্টে জমা হবে।

এছাড়া ছাত্র-ছাত্রীদের এককালীন একটা টাকা দেওয়া হয়। যারা বৃত্তির জন্য চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত হবে তাদের একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রথম ৬ মাসের বৃত্তি ৬×২৫০০=১৫০০০ টাকা দেওয়া হবে।

এর সাথে পাঠ্যপুস্তক ও পোষাক ক্রয়ের জন্য ৬০০০ টাকা এবং অনুষ্ঠানে যাতায়াত খরচ হিসেবে আরও ১০০০ টাকা প্রদান করা হবে।

অর্থাৎ নির্বাচিত শিক্ষার্থীরা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এককালীন ১৫০০০+৬০০০+১০০০=২২০০০ টাকা অনুদান পাবে।

এরপরে প্রতি মাসে ২৫০০ টাকা পেতে থাকবে বাকি ৪২ মাস (অনার্স) এবং ৩০ মাস (ডিগ্রী) মাস পর্যন্ত।

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ রেজাল্ট

শিক্ষাবৃত্তির জন্য দরখাস্ত আহবান করার কয়েক মাসের মধ্যে চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষ থেকে নির্দিষ্ট কোনো তারিখ জানানো হয়নি।

পূর্বের ইতিহাস লক্ষ্য করলে দেখা যায় যে ১-২ মাসের মধ্যেই বৃত্তির ফলাফল দেওয়া হয়। ফলাফল প্রকাশিত হয়ে নির্ধারিত ওয়েবসাইট, তাদের ফেসবুক পেইজে পাওয়া যাবে।

এছাড়া নির্বাচিত সকল শিক্ষার্থীর মোবাইলে SMS এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে। তাই ফলাফল ঘোষণার তারিখ নিয়ে দুশ্চিন্তা করার প্রয়োজন নেই।

শেষাংশ - SJIBL Scholarship Circular

আশা করবো আজকের উপস্থাপিত সকল তথ্য আপনাদের উপকারে আসবে। যারা বিভিন্ন শিক্ষাবৃত্তি ও পড়াশোনা বিষয়ক তথ্য ও আপডেট জানতে চান তারা অ্যাডমিশন সেবা ব্লগটি নিয়মিত ভিজিট করতে পারেন।

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ সার্কুলার বিষয়ক আরও কোনো প্রশ্ন বা কনফিউশান থাকলে তা কমেন্ট করে জানাতে ভুলবে না।

পরবর্তী পোস্ট
No Comment
কমেন্ট করুন
comment url